DA কি এবং DA কিভাবে বাড়াবো

হ্যালো বন্ধুরা আমার একটি নতুন আর্টিকেলে আপনাদের সবাইকে স্বাগতম আজ আমরা শিখব ডোমেন অথরিটি কি আর ডোমেইন অথরিটি কিভাবে বাড়াবো?  যদি আপনি একজন ব্লগার বা ডিজিটাল মার্কেটিং হয়ে থাকেন বা আপনি এই ফিরলে আসতে চান তাহলে ডোমেইন অথরিটি একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় এটি সমস্ত ব্লগার বা যেকোনো ওয়েবসাইটের মালিকের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ

 যদি আপনি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন আর যদি আপনি না জেনে থাকেন ডোমেন অথরিটি কি আর আপনি এই টপিকের উপর প্রথম থেকে সব কিছু জানতে চান তাহলে এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য খুবই লাভ দায়ক হবে

 আমার এই ব্লগের একমাত্র উদ্দেশ্য হলো আপনাদের সবাইকে সহজ ভাষায় বিভিন্ন টপিক সম্বন্ধে জানকারি দেওয়া আজ আমি আপনাদের শেখাব ডোমেন অথরিটি কি আর আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি কিভাবে বাড়াবেন এটি আপনার বুকিং এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়ে থাকে


DA কি এবং DA কিভাবে বাড়াবো



ডোমেন অথরিটি কি - In Bengali



ডোমেইন অথরিটি যেকোনো ওয়েবসাইট বা ব্লগের বিশ্বস্ততা এবং জনপ্রিয়তা দেখায় যেকোনো ব্লগের অনলাইনে ইন্টারনেটে তার কতটা জনপ্রিয়তা আছে ওই ওয়েবসাইটে অনলাইনে কত ভালো আইডিয়াস দিচ্ছে সেটি আপনার ব্লগের মাধ্যমে গুগলে প্রদর্শিত হয়


 কারণ আপনারা সবাই জানেন গুগল পৃথিবীর মধ্যে সবথেকে বড় সার্চ ইঞ্জিন আর আমরা যে কোন ছোট ছোট প্রশ্নের উত্তর খোঁজার জন্য গুগলের সাহায্য নিয়ে থাকি এইজন্য যে কোন ওয়েব সাইট বা ব্লগ গুগলের যত বিশ্বস্ততা পাবে ততো আপনার সাইডের রেংকিং এও সাহায্য করবে এটিকে ডোমেন অথরিটি বলা হয়


 এখানে আমি আপনাদের একটি কথা বলতে চাই টমেন অথরিটি এর রেংকিং ফ্যাক্টর বা এসইও ফ্যাক্টর গুগল নিয়ে আসেনি এটি মজ প্রথম নিয়ে এসেছিল আর এটিতে 1 থেকে 100 পর্যন্ত সংখ্যায় মাপা হয় আর এটি গুগলে যে কোন ওয়েবসাইটের কতটা বিশ্বাস আছে সেটা প্রদর্শিত করে

 যদিও গুগল ডোমেন অথরিটি ফ্যাক্টর কে তার তার অধিকারের মধ্যে কথাও বলেনি কিন্তু এটি তার ফ্যাক্টরের 200 ranking parameter এর মধ্যে আছে যারা প্রফেশনাল ভাবে এই ফিল্ডে আছেন তাদের এক্সপেরিমেন্টের উপর নির্ভর করে বলা হয় ডোমেন অথরিটি রেংকিং এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ নিয়ে থাকে




ডোমেন অথরিটি কিভাবে চেক করব


বন্ধুরা যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি চেক করতে চান তাহলে আপনি অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের টুল পেয়ে যাবেন যেখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথরিটি আর পেজ অথরিটি চেক করতে পারবেন কিন্তু আমি এখানে আপনাদের কিছু জনপ্রিয় DA PA checker tool  কথা বলব যেখানে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি চেক করতে পারবেন আর সাথে আপনি আপনার ওয়েব সাইটের ব্যাকলিংক চেক করতে পারবেন

ডোমেইন অথরিটি কিভাবে বাড়াবো

বন্ধুরা যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়াতে চান আর গুগলের উচ্চ পেজে রেঙ্ক করতে চান তাহলে আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়াতে হবে তাই আমি আপনাদের এখানে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস দেব যেটিকে আপনাদের ওয়েবসাইটে ইমপ্লিমেন্ট করতে হবে

প্রতিদিন কনটেন্ট পাবলিশ করুন

বন্ধুরা যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়াতে চান তাহলে আপনাকে প্রতিদিন একটি করে আর্টিকেল অবশ্যই পাবলিশ করতে হবে কারণ গুগল তার নিজের ইউজারদের প্রতিদিন ভালো আর নতুন কন্টাক্ট দেওয়া খুবই পছন্দ করে এই জন্য যত নতুন আর ভালো কন্টাক্ট আপনি প্রতিদিন পাবলিশ করবেন ততো গুগোল আপনার ওয়েবসাইটের উপর বিশ্বাস বাড়াবে

কোয়ালিটি ব্যাকলিংক বানান

 বন্ধু বাড়ানোর জন্য দ্বিতীয় সবথেকে বড় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে থাকে ব্যাকলিংক অবশ্যই এমন ওয়েবসাইট থেকে  ব্যাকলিংক বানান যেটি প্রথম থেকে গুগলে বিশ্বাস অর্জন করে আছে যার ফলে আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়বে আর রেংকিং এও খুব সাহায্য করবে

ইন্টারনাল আর এক্সটার্নাল লিঙ্কিং করুন

বন্ধুরা অবশ্যই এই কথাটি সব সময় খেয়াল রাখবেন যখনই আপনি কোন নতুন কনটেন্ট পাবলিশ করবেন তখন সেই কণ্ঠে এক্সটার্নাল অর্থাৎ অন্য কোন ভালো ওয়েব সাইটের লিংক দিবেন আর ইন্টার্নাল লিংকিং অর্থাৎ আর্টিকেল এর মধ্যে আপনার অন্য ব্লগ পোস্ট এর লিঙ্ক দেবেন এর ফলে আপনার কনটেন্ট এর রেঙ্কিং এ সাথে সাথে তার পেজ আর ডোমেইন অথরিটি বাড়বে

গেস্ট পোস্ট করুন

 বন্ধুরা গেস্ট পোস্ট অর্থাৎ অন্য কোন ওয়েবসাইটে আর্টিকেল পোস্ট করাকে গেস্ট পোস্ট বলা হয় আর সর্বদা অন্য ব্লগারদের সাথে জুড়ে থাকুন অর্থাৎ তাদের সাথে ভালো কানেকশন রাখুন আর তাদের ওয়েবসাইটে আপনার আর্টিকেল পাবলিশ করুন অর্থাৎ গেস্ট পোস্ট করুন এর ফলে আপনি ব্যাকলিংক পাবেন সাথে সাথে ট্রাফিক আসবে আর আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়বে

ব্লগ কমেন্টিং অবশ্যই করুন

 বন্ধুরা সর্বদা এমন ভালো আর হাই অথরিটি ওয়েবসাইটে খুঁজে বের করুন যাদের ডোমেইন অথরিটি খুবই ভালো আর তাদের পোস্টে জেনুইন ভাবে কমেন্ট করুন এর ফলে আপনি ব্যাকলিংক পাবেন আর সাথে রেফারেল ট্রাফিক অাসবে যার ফলে গুগোল এ আপনার ব্লগের trustflow বাড়বে

খারাপ ব্যাকলিংক disavow করুন

বন্ধুরা সর্বদাই ভালো ওয়েবসাইট থেকে ব্যাকলিংক বানান আর ব্যাকলিংক বানানোর আগে ওই সাইড এর স্প্যাম স্কোর অবশ্যই চেক করবেন আর অবশ্যই আপনার ওয়েব সাইটের ব্যাকলিংক চেক করতে থাকবেন কারণ আপনার ওয়েবসাইটে কোন স্প্যাম ব্যাকলিংক না বানানো হয়ে যায় কারণ অনেক সময় আপনা আপনি খারাপ ব্যাকলিংক বানানো হয়ে যায় যার ফলে আপনার ওয়েবসাইটের রেংকিং ডাউন হয়ে যায় তাই সর্বদায় আপনার ওয়েবসাইটকে চেক করতে থাকুন এর জন্য আপনি কিছু টুলসের ব্যবহার করতে পারেন যেমন MOZ, Ahref, Semrush ইত্যাদি

 ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড ঠিক করুন

বন্ধুরা কোন ওয়েবসাইটের রেংকিং এর জন্য ওই ওয়েবসাইটের লোডিং স্পিড একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়ে থাকে আপনাকে আপনার ব্লগের স্পিড এর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে আর যত তাড়াতাড়ি আপনার ওয়েবসাইট লোড হবে ততো তাড়াতাড়ি আপনার রেংকিং এও ইম্প্রুভ হবে যদি আপনার ওয়েবসাইট 1 থেকে 3 সেকেন্ডের মধ্যে খুলে যায় তাহলে এটি খুবই ভালো কথা যদি আপনার ওয়েবসাইট 3 সেকেন্ডের থেকে বেশী সময় নেয় তাহলে আপনাকে এটির উপর অবশ্যই লক্ষ্য রাখতে হবে

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ারিং বাড়ান

বন্ধুরা যখনই আপনি আপনার ব্লগে নতুন কোন পোস্ট করবেন তখন সেটিকে আপনার সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইটে অবশ্যই শেয়ার করবেন কারণ রেংকিং ফ্যাক্টর এ সোশ্যাল মিডিয়া শেয়ারিং একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নির্বাহ করে সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার পোষ্টের উপর যত বেশি এনগেজমেন্ট আর শেয়ারিং হবে যত তাড়াতাড়ি আপনার পোস্ট রাঙ্ক করবে আর যদি রেঙ্ক করে তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি ও বাড়বে


আশা করছি আপনারা অবশ্যই বুঝতে পেরেছেন ডোমেন অথরিটি কি আর ডোমেইন অথরিটি কিভাবে বাড়াবেন এই প্রত্যেকটি স্টেপস কে ফলো করে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি বাড়াতে পারবেন আর গুগলে রেঙ্ক করতে পারবেন

 আর প্রতিদিন একটি করে নতুন আর্টিকেল পাবলিশ করতে থাকুন এরপরে গুগলের চোখে আপনার ওয়েবসাইটের বিশ্বাস বাড়বে আর গুগোল বুঝবে আপনি প্রতিদিন আপডেট থাকেন আর আপনি ভাল কনটেন্ট আপনার ইউজারদের দেন এরফলে আপনার ওয়েবসাইট গুগলে রেঙ্ক করবে আর আপনার ওয়েবসাইটের অথরিটি ও বাড়বে

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

0 মন্তব্য